কোপার ফাইনাল খেলতে আর্জেন্টিনার সামনে বাধা কলম্বিয়া

0
কোপাফাইনাল খেলতে আর্জেন্টিনার সামনে বাধা কলম্বিয়া

প্রেসনিউজ২৪ডটকমঃ সুপারস্টার লিওনেল মেসি অর্জন করেননি ক্লাব ফুটবলে এমন কোনো ট্রফি বাকি নেই। বিশ্বের যেকোনো ফুটবলাদের চেয়ে বেশি ব্যালন ডি’অরের মালিকও তিনি। কিন্তু একটি জায়গায় এখনো খানিকটা পিছিয়ে রয়েছেন ৩৪ বছর বয়সী এই তারকা ফুটবলার।

দেশের হয়ে এখনো কোনো ট্রফি জেতা হয়নি। মেসির নেতৃত্বে আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে একবার এবং কোপায় দুইবার ফাইনাল খেললেও হেরেছে প্রতিবারই। আবারো কোপায় চোখ রাঙাচ্ছে বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী দলটি। উঠে গেছে সেমিফাইনালে। প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে দল হিসেবে কতটা শক্তপোক্ত কলম্বিয়া? তাদের উতরে আরো একবার ফাইনালে উঠতে পারবে তো মেসির আর্জেন্টিনা?

এবার লাতিন আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই আর্জেন্টিনায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে সেটা হয়নি। নানা নাটকীয়তার পর কোপা আমেরিকার আয়োজন করছে ব্রাজিল। কিন্তু নিজ দেশে টুর্নামেন্টটি অনুষ্ঠিত না হলেও চলতি আসরে খারাপ খেলছে না দ্বিতীয় কোপার সর্বোচ্চ শিরোপাজয়ী দেশটি।

চিলির বিপক্ষে নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচটি ১-১ গোল ব্যবধানে ড্র হওয়ার পর জিতেই চলেছে একের পর এক ম্যাচ। গ্রুপপর্বের চার ম্যাচে একটি ড্র এবং তিনটি জয়ে সর্বোচ্চ ১০ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই কোয়ার্টারে উঠে দুইবারের বিশ্বকাপজয়ীরা। আর সেরা আটের লড়াইয়ে আরো ভয়ঙ্কর হয়ে উঠে মেসি বাহিনী। সেমিফাইনালে উঠার লড়াইয়ে ইকুয়েডরকে উড়িয়ে দিয়েছে ৩-০ গোল ব্যবধানে। এবার ফাইনালের উঠার পথে বাঁধা কলম্বিয়া।

গ্রুপপর্বে নিজেদের শেষ দুই ম্যাচ হারলেও কলম্বিয়াকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। কেননা তাদের মধ্যে রয়েছে শিরোপা জয়ের প্রবল ইচ্ছা শক্তি। গ্রুপপর্বে ৪ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয়স্থানে অবস্থান ছিল হামেস রদ্রিগেজদের। সেরা আটের লড়াইয়ে তুলনামূলক কঠিন প্রতিপক্ষই পায় দলটি। কিন্তু উরুগুয়ের বিপক্ষে শেষ হাসি হেসেছে কলম্বিয়াই। নির্ধারিত সময়ে ম্যাচটি গোলশূন্যেতে ড্র হলে টাইব্রেকারে ৪-২ গোল ব্যবধানে জিতে সেমিফাইনালে উঠে রেনালদো রুয়েদার শিষ্যরা।

ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে আগামী বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায় পরস্পরের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া। দুদলের শক্তিমত্তা বিবেচনায় এগিয়ে রাখবেন কাকে?

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে কে, কোথায়?

ফিফা কর্তৃক প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে সেরা পাঁচের মধ্যে কোনো দল না থাকলেও কলম্বিয়া থেকে খানিকটা উপরেই অবস্থান করছে আর্জেন্টিনা। ১৬৪২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ইতালির পরেই আটে নম্বরে অবস্থান লিওনেল স্কালোনির শিষ্যদের। অন্যদিকে র‌্যাঙ্কিংয়ে কলম্বিয়া রয়েছে ছয় ধাপ পেছনে। ১৬০১ রেটিং পয়েন্টে তাদের অবস্থান ১৫ নম্বরে। বলাই বাহুল্য ফিফা র‌্যাঙ্কিং মোতাবেক এগিয়ে থাকবে মেসিরাই।

পরস্পরের মোকাবিলায় জয়-ড্র-হার

১৯৪৫ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি কোপা আমেরিকা ফুটবল টুর্নামেন্টেই আর্জেন্টিনা এবং কলম্বিয়া একে অপরের বিপক্ষে প্রথম মাঠে নামে। আর দুদলের সর্বশেষ দেখা হয়েছে ২০২১ সালের ৮ জুন বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের ম্যাচে। এখন পর্যন্ত একে অপরের বিপক্ষে মোট ৪০টি ম্যাচে মাঠে নেমেছে আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়া। এর মধ্যে ২৩টি ম্যাচ জিতে নিয়েছে দুইবারের বিশ্বকাপজয়ী দলটি। আর কলম্বিয়া জয় পেয়েছে ৯টি ম্যাচে। বাকি ৮টি ম্যাচ হয়েছে ড্র।

কোপা আমেরিকার পরিসংখ্যান

লাতিন আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়েই একে অপরের বিপক্ষে প্রথম মাঠে প্রায় ৭৫ বছর আগে। সে ম্যাচ জয় এসেছিল আর্জেন্টিনার পক্ষে। তবে শেষ দেখায় কিন্তু হাসি হেসেছে কলম্বিয়া। এই পর্যন্ত কোপা আমেরিকায় মোট ১৫বার মুখোমুখি হয় আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া। স্বাভাবিকভাবেই জয়ের হারে এগিয়ে রয়েছে স্কালোনির শিষ্যরাই। মোট ১০টি ম্যাচ জেতার পাশাপাশি হেরেছে মাত্র তিনটিতে। আর বাকি দুই ম্যাচ অমীমাংসিত ড্র হয়েছে।

কোপায় কলম্বিয়ার বিপক্ষে আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় জয় ৯-১ গোল ব্যবধানে। দুদলের মধ্যকার প্রথম মোকাবেলা ছিল এটি। এছাড়াও ৮-০ গোলে এবং ৬-০ গোল ব্যবধানে জয়ের নজিরও রয়েছে। এদিকে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে মোটে তিনটি ম্যাচে জয় পাওয়া কলম্বিয়ার সবচেয়ে বড় জয় ৩-০ গোলে। ১৯৯৯ সালের ৪ জুলাই কোপার ম্যাচে এই জয়টি পায় তারা।

উল্লেখ্য, পরিসংখ্যানে লিওনেল মেসি বাহিনী এগিয়ে থাকলেও হামেস রদ্রিগেজদের ছোট করে দেখার কোনো অবকাশ নেই। কেননা পূর্বের চেয়ে অনেক বেশি পক্ত হয়েছে কলম্বিয়া। আর আর্জেন্টিনার জন্য সবচেয়ে খারাপ খবর হচ্ছে কোপা আমেরিকায় দুদলের মধ্যকার শেষ দেখাতে শেষ হাসি হেসেছিল কলম্বিয়াই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here