না’গঞ্জ জেলা সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোটের প্রধান কার্যালয় উদ্বোধন

0
না’গঞ্জ জেলা সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোটের প্রধান কার্যালয় উদ্বোধন

প্রেসনিউজ২৪ডটকমঃ নিজস্ব সংবাদদাতা// নারায়ণগঞ্জ জেলার নাট্যকর্মীদের সমন্বয়ে গঠিত সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোট নারায়ণগঞ্জের প্রধান কার্যালয় উদ্বোধন করা হয়েছে। গত সোমবার (১ নভেম্বর) নগরীর ২নং রেল গেইট এলাকায় অবস্থিত ফজর আলী ট্রেড সেন্টারের ৬ষ্ঠ তলায় সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোট নারায়ণগঞ্জের প্রধান কার্যালয়ের উদ্বোধন করা হয়। এসময় জোট সভাপতি মোঃ হুমায়ুন কবীরের সভাপতিত্বে ও প্রতিষ্ঠাতা অর্থ সম্পাদক শফিউল আলম রেজার সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও নাট্যকর্মী জোটের উপদেষ্টা এডভোকেট খোকন সাহা।

উদ্ভোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিল্পপতি বাংলাদেশ আটা ময়দা মিল মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক ও জোটের উপদেষ্টা আলহাজ¦ আব্দুল মতিন মন্টু। বিশেষ আতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিকেএমইএ’র পরিচালক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ কবির হোসেন ও দৈনিক স্বাধীন বাংলাদেশ পত্রিকার প্রকাশক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ আশ্রাফ উদ্দিন প্রমূখ।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোটের সাধারন সম্পাদক চিত্র নায়ক মাসুদ রানা মিন্টু। এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এড. খোকন সাহা বলেন, একটু আগেই আমি জানলাম ১১শ সদস্যের সংগঠন এই সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোট। আমার বুকটা ভরে গেলে। আমি একটা আশার আলো দেখতে পারছি। আপনারা জানেন আমি অনেক বছর ধরে পলিটিক্স করি। সেই ৭৫-৭৬ সাল থেেক মাঠে নামছি অনেক বছর হয়ে গেছে। আমরা আসলে রাজনৈতিককর্মী নাট্যকর্মী না। তবে এই দেশের প্রতিটি আন্দোলনে নাট্যকর্মীদের ভূমিকা অনেক। ব্রিটিশি বিরোধী আন্দোলনে যখন স্বদেশীরা ব্রিটিশদের সাথে পারছিলো না তখন নাট্যকর্মীরা স্বদেশীদের ভাষায় বৃটিশ বিরোধী কথা বলতেন।

তিনি বলেন, এরশাদ আমলে যখন আমরা সামরিক শাসনের কারনে চার জনের বেশী চলাফেরা করতে পারতাম না। তখন নাট্যর্কমীরা কত নাটক দেখাতো। নাটকের খবর পেলে চুনকা পাঠাগার আর অন্য যেখানেই নাটক মঞ্চস্থ হতো আমরা ছুটে যেতাম। নাট্যকর্মীরা কিন্তু আকারে ইঙ্গিতে স্বৈরশাসকের বিরুদ্ধে কথা বলতো আমরা সেইটাই শুনতে যেতাম। এরশাদ সাহেবের পতনের পরে আসলে নাট্যর্কমীরা কেন যেন হারিয়ে গেল।

তিনি আরো বলেন, একটা কথা আমি উপলব্ধি করলাম নাটক জীবনের কথা বলে নাটক মানুষের কথা বলে। এইটা আমি ৬১ বছর পরে উপলব্ধি করলাম আর নাটকের মাঝে থাকলে মাদকের হাত থেকে দূরে থাকবে আমাদের সন্তানরা এইটা কিন্তু পরিস্কার। এই ধরনের কিছুু নাটক আপনারা মঞ্চে উপস্থাপন করবেন। আমরা তো বলি, কিন্তু‘ আপনারা নাটকের মাধ্যমে মঞ্চে উপস্থাপন করলে জনগন খাবে। অভিভাবকদের আর যুব সমাজকে দেখাবেন যে এই বিষয়টা খারাপ। নারী নির্যাতন করলে কি হয় এই বিষয়টা আপনারা নাটকরে মাধ্যমে তুলে ধরবেন। এতে আপনারা জনগনের সাপোর্ট পাবেন। আমি আপনাদের কথা দিয়ে গেলাম এই নাট্যর্কমী জোটের জন্য কি করতে পারবো জাননিা, তবে মৃত্যরু আগ পর্যন্ত আপনাদের পাশে থাকবো। তবে সৃষ্টিকর্তা যদি তৌফিক দেয় তাহলে আপনাদের বিশাল সমস্যার ক্ষুদ্র অংশীদার হবো।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বন্দর উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারন সম্পাদক সাব্বির আহমেদ সেন্টু, আয়োজক নাট্যকর্মী জোটের সহ সভাপতি মোঃ শাহআলম, মোঃ মনির হোসেন নিমাই, সহ সাধারন সম্পাদক মোঃ কবির প্রধান, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর রায়, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সেলিম খন্দকার খোকন, সহ সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আলহাজ¦ মোঃ নুর হোসেন,সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদক ডাঃ আবুল বাশার, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এড.আহমেদ শরীফ পারভেজ, আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. সম্ভু নাথ সাহা সৈকত, দপ্তর সম্পাদক শেখ আলমাছ আলী, সহ প্রচার সম্পাদক শেখ মনছুর আলী, প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী সদস্য শাহ আলম ভূঁইয়া, নির্বাহী সদস্য মোঃ ইদ্রিস আলী, সৃষ্টি গ্রুপ থিয়েটারের সাধারন সম্পাদক মোঃ মোক্তার হোসেন, নারায়ণগঞ্জ নাট্যচক্রের সভাপতি ফজলুল পলাশ, জিনিয়া নাট্য গোষ্ঠীর দলপতি জুয়েল চৌধুরী, সুজন নাট্য গোষ্ঠীর প্রতিনিধি সাইদুর রহমান সাঈদ, নারায়ণগঞ্জ নাট্য সম্প্রদায়ের আব্দুর রহমান, প্রভাতী থিয়েটারের দলপতি এজাজ খান, মুক্ত নাট্যগোষ্ঠীর দলপতি সামছুর রহমান ফালান, নারায়ণগঞ্জ নাট্যাঙ্গনের প্রতিনিধি শাহ জালাল মন্ডল, নারায়ণগঞ্জ শিল্পী সমিতির সাধারন সম্পাদক মাসুমুল হক সোহেল, বাংলাদেশ মানবাধিকার কাউন্সিল নারায়ণগঞ্জ জেলার যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোঃ কামাল আহাম্মেদ। এছাড়াও সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোটের সাতটি থানার প্রতিটি নাট্যদলের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here