ফতুল্লায় কান ধরে ক্ষমা চাইলেন যুবলীগ নেতা

0
ফতুল্লায় কান ধরে  ক্ষমা চাইলেন যুবলীগ নেতা

প্রেসনিউজ২৪ডটকমঃ ফতুল্লা সংবাদদাতা: মাদক ব্যবসায়ীদের মদত দেওয়া ও মাসোহারা নেয়ার অভিযোগে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানা এলাকায় মাদক বিরোধী এক সমাবেশে স্থানীয় এক যুবলীগ নেতাকে কান ধরিয়ে উঠবস করে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ানো হয়েছে।

রোববার (১১ অক্টোব) বিকালে থানার পশ্চিম শাহী মহল্লায় আয়োজিত মাদক বিরোধী সমাবেশে আবদুর রহমান নামে ওই যুবলীগ নেতা নিজের অপকর্ম স্বীকার করে কান ধরে ক্ষমা প্রার্থনা করলে তাকে শেষবারের মতো সুযোগ দেয়া হয়। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন থানার ওসি আসলাম হোসেন। পশ্চিম শাহী মহল্লাবাসীর উদ্যোগে মাদক বিরোধী প্রতিবাদ সভা সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তবে মাদক বিরোধী সমাবেশটিতে সভাপতিত্ব করেন কুতুবপুর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বিতর্কিত আওয়ামীলীগ নেতা মেম্বার আলাউদ্দিন হাওলাদার। আলাউদ্দিন হাওলাদারের বিরুদ্ধে নিরীহ যুবককে বাড়ি থেকে তুলে এনে চোর আখ্যা দিয়ে নিজ কার্যালয়ে হাত পা বেঁধে নির্মম ভাবে পেটানোর অভিযোগসহ নানা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে মদত দেয়ারও অভিযোগ রয়েছে। নিরীহ যুবককে মারধরের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়। তবে পুলিশের সহযোগিতার কারণে আলাউদ্দিন উচ্চ আদালত থেকে জামিন পান।

সমাবেশে উপস্থিত সবার সামনে আবদুর রহমান নামে এক যুবলীগ নেতা মাদক ব্যবসায়ীদের শেল্টার ও তাদের কাছ থেকে মাসোহারা নেয়ার অভিযোগে কান ধরে উঠবস করে প্রকাশ্যে ক্ষমা চান। ভবিষ্যতে তিনি মাদক সংশ্লিষ্ট কোন কাজে সম্পৃক্ত থাকবেন না বলে শপথ করেন। আবদুর রহমান যুবলীগের স্থানীয় রাজনীতিতে জড়িত থাকলেও তার কোন পদ পদবী নেই।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন বলেন, পুলিশ মানুষকে ভাল হওয়ার সুযোগ দেয়। আবদুর রহমান নিজের ভুল বুঝতে পেরে প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়েছে। আমরা তাকে ভাল হওয়ার সুযোগ দিয়েছি। সে আমাদের কথা দিয়েছে যে মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের সহযোগিতা করবে।

সমাবেশে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু, থানা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ইউনুছ ঢালী, কুতুবপুর ইউনিয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালেক মুন্সি, মাহবুবুর রহমান হক, যুবলীগ নেতা দীন ইসলাম প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here