বিয়ের প্রলোভনে মুসলিম তরুণীর সর্বস্ব লুটের অভিযোগ হিন্দু যুবকের বিরুদ্ধে

0
বিয়ের প্রলোভনে মুসলিম তরুণীর সর্বস্ব লুটের অভিযোগ হিন্দু যুবকের বিরুদ্ধে

প্রেসনিউজ২৪ডটকমঃ ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধিঃ ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে ইসলাম গ্রহণ করে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক হিন্দু যুবক কর্তৃক মুসলিম তরুণী কে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতারক ঐ যুবকের নাম অলোক রাজবংশী। সে বোয়ালমারী পৌর সদরের আধারকোঠা নিবাসী সুকুমার রাজবংশীর ছেলে।

এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে ভুক্তভোগী ঐ নারী। এজাহার ও তথ্যানুসন্ধানে জানাযায়,অভিযুক্ত অলোক রাজবংশী ও ঐ তরুণী উভয়েই স্থানীয় পর্যায়ে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সঙ্গে যুক্ত। সেই সুবাদে তাদের মধ্যে পরিচয় ও প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এর এক পর্যায়ে সু-চতুর অলোক মুসলমান হয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মেয়েটির সঙ্গে অবৈধ শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলে। এর ধারাবাহিকতায় এক সময় পালিয়ে গিয়ে উপজেলার সহস্রাইল এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে স্বামী-স্ত্রী হিসাবে বসবাস শুরু করে তারা।

এ সময় বিয়ের কথা বলে কিছু সাদা কাগজ-পত্রে মেয়েটির সাক্ষর নিয়ে নেয় অলোক। দীর্ঘ প্রায় আড়াই বছর এভাবে মেলামেশা করার পর অভিভাবকদের চাপে এক সময় অলোক ভিকটীমের সাথে দূরত্ব সৃষ্টি করতে থাকে। নানা অযুহাতে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন শুরু হয় মেয়েটির উপর। সম্প্রতি মেয়েটিকে ভাড়া বাড়িতে একা ফেলে গা ঢাকা দেয় প্রতারক অলোক রাজবংশী। শুধু তাই নয় নিজের মা-বাবার পরিবারে ফিরে এসে অলোক ইতিমধ্যেই অপর এক হিন্দু মেয়েকে বিবাহ করেছে বলে জানাগেছে।

এঘটনায় ক্ষোভ -দুঃখে মুষঢ়ে পড়া মেয়েটি গত ২ মে রাতে বোয়ালমারী থানায় একটি লিখিত এজাহার দাখিল করেছে। সুবিচার চেয়ে ভুক্তভোগী এজাহার ও সাংবাদিকদের জানায়,অলোক কথা দিয়েছিলো সে মুসলমান হয়ে আমাকে বিয়ে করবে। সে মোতাবেক অলোক একদিন পাঞ্জাবী-টুপি পরে বাসায় আসে এবং বিয়ের কথা বলে কাগজ-পত্রে সাক্ষর নেয়। কিছুদিন নামাজও পড়ে। মুসলিম নাম রাখে মোঃ আরিয়ান মোল্যা।

এখন দেখছি,এসবই ওর নাটক ছিলো!প্রশ্ন হলো-মুসলিম হয়ে সে কিভাবে হিন্দু মা-বাবার ঘরে ফিরে যায় এবং হিন্দু মেয়েকে বিবাহ করে? আমি এ ঘটনার ন্যায় বিচার চাই। এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য অলোকের মুঠোফোনে কল করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। অলোকের বাবা শুকুমার রাজবংশী বলেন,মেয়েটি অলোকের বন্ধু ছিলো জানতাম। সেই সূত্রে তারা কোথায় কি করেছে আমার জানানেই। বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ নুরুল আলম বলেন,দরখাস্ত পেয়েছি। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যাবস্থা নেবো

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here