মতলব উত্তরে ষাটনল ইউনিয়নে নৌকার গনজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে

0
মতলব উত্তরে ষাটনল ইউনিয়নে নৌকার গনজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে

প্রেসনিউজ২৪ডটকমঃ নিজস্ব প্রতিবেদকঃ  চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ১ নম্বর ষাটনল ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী ষাটনল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি একেএম শরীফ উল্লাহ সরকার পথসভা ও গণসংযোগ করেছেন।

গতকাল বুধবার ইউনিয়নের সটাকী, সুগন্ধী, ষাটনল মালোপাড়া, ও ষাটনল লঞ্চঘাট এলাকায় গণসংযোগ এ পথ সভা করেন তিনি। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন,উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী। চেয়ারম্যান প্রার্থী ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি একেএম শরীফ উল্লাহ সরকার এতে সভাপত্বি করেন। এসময় ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ সরকার, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মাজহারুল ইসলাম মিজান, বিশিষ্ট সমাজ সেবক আ’লীগ নেতা আঃ সাত্তার মিয়াজী, মোঃ আমান উল্লাহ সরকার, ইউনিয়ন আ’লীগের সাবেক সহ-
সভাপতি মিজানুর রহমান মিয়াজী, সমাজ সেবক আঃ বাতেন মিয়া, ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি জহির বেপারী, সটাকীর সাবেক মেম্বার বশির উদ্দিন, উপজেলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রাশেদ,
থানা ছাত্রলীগের নেতা জোবায়ের বাবু,ষাটনল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শাকিল,যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নাইম দেওয়ান প্রমূখ।

সভা শেষে বিকেলে ষাটনল ,কালিপুর,পূর্ব লালপুর উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার লক্ষ্যে ২৮ নভেম্বা নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে মিছিল বের করে আ’লীগের নেতাকর্মীরা। উপস্থিত সকল নেতৃবৃন্দ নৌকা প্রতীকের পক্ষে ভোট চান ও নৌকা প্রতীক বিজয়ের লক্ষে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।  এসময় বক্তারা আরও বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে ও উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার স্বার্থে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে। সে লক্ষ্যে সকল নেতাকর্মীকেও ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। এটা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি মোঃ গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ষাটনলের উন্নয়নের প্রতীক নৌকা। ষাটনলের সবার মুখে মুখে এখন নৌকা আর নৌকা। নৌকা ছাড়া অন্য কোনো মার্কা খুজে পাওয়া যোবে না। আমরা সবাই ষাটনল ইউনিয়নকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তোলার জন্য সবাই নিজের খাইয়া ২৮ তারিখ সারা দিন নৌকায় ভোট দিব। নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত ইনশাল্লাহ। গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী আরও বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ্য ব্যাক্তিকেই নৌকা প্রতীক দিয়েছেন।

আমার ছোট ভাই একেএম শরফি উল্লাহ সরকার মেধাবী,বিনয়ী,নম্র,ভদ্র জনবান্ধব চেয়ারম্যান। তিনি চেয়ারম্যান হিসেবে এ ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে। আপনারা এ উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে আগামী ২৮ নভেম্বর সারা দিন নৌকা প্রতীকে ভোট দিন। তাহলে এ ইউনিয়নের অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজগুলো সম্পন্ন করে ষাটনলকে একটি আধুনক মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ো তোলা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেমন দেশের উন্নয়ন করছেন, তেমনি সরকারের উন্নয়ন ইউনিয়ন পর্যায়ে পৌঁছে দিতে একজন যোগ্য চেয়ারম্যানের বিকল্প নেই। অত্র ইউনিয়নের একেএম শরীফ উল্লাহ সরকার একজন যোগ্য চেয়ারম্যান প্রার্থী।

তিনি আরও বলেন আমাদের ষাটনল ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে। বিদুত্যায়ন,বিভিন্ন রাস্তাঘাটসহ অসংখ্য উন্নয়ন হয়েছে। কাজেই আমাদের উন্নয়ন ধারাবাহিকতা বজায় রাখার স্বাথে ২৮ তারিখ নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয় লাভ করবো। আমরা সবাই ঐকবদ্ধ নৌকা আমাদের সকলের প্রতীক। উন্নয়নের প্রতীক। ষাটনলে নৌকার বিকল্প কিছু নেই। নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী একেএম শরীফ উল্লাহ সরকার তার বক্তব্যে বলেন, আমি এই ইউনিয়নে টানা ২ বারের চেয়ারম্যান পরিষদ চালাতে গিয়ে ভুলত্রুটি হতে পারে এজন্য আমি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

আমি এই ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কর‌্যানে ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। দীর্ঘদিন অত্র ইউনিয়নবাসীর সুখে,দুখে বিপদে-আপদে তাদের পাশে ছিলাম। দীর্ঘদিন ধরে দলের জন্য কাজ করছি। দলের মানুষের জন্য কাজ করছি। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবন, বঙ্গবন্ধু ও তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি সম্মান ও ভালোবাসা বুকে ধারণ করে আওয়ামীলীগের রাজনীতি করে আসছি। নিজ ইউনিয়নের কোনো মানুষ বিপদে পড়লেই সবার আগে ছুটে যাই।

আমরা বঙ্গবন্ধুর আর্দশের ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৈনিক তিনি ষাটনল ইউনিয়নবাসীকে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্য নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার অনুরোধ জানান। ষাটনল ইউনিয়নের অসমাপ্ত কাজগুলোকে সম্পন্ন করতে নৌকা মার্কায় ভোট চান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here